Home বিনোদন জারিন খানের পরবর্তী সিনেমা, লেসবিয়ানের চরিত্রে অভিনয়, কী বললেন জারিন?

জারিন খানের পরবর্তী সিনেমা, লেসবিয়ানের চরিত্রে অভিনয়, কী বললেন জারিন?

by Webdesk

জারিন খানের পরবর্তী সিনেমা, লেসবিয়ানের চরিত্রে অভিনয়, কী বললেন জারিন?

অভিনেত্রী জারীন খান এবার অন্য পথে হাঁটছেন৷ তার পরের ছবি “হম ভি আকেলে তুমি ভী আকেলে”,এই ছবিতে জারিন সমকামী চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সিনেমাটি বীর এবং মানসীর জীবনের সুন্দর গল্প – একজন সমকামী পুরুষ এবং একটি সমকামী স্ত্রীলোক – পথভ্রমণে বেড়িয়েছেন, যার উদ্দেশ্য ভারতের সামাজিক কুসংস্কার এবং ভারতের সমকামিতার সঙ্গে জড়িত নানা ট্যাবু’স সঙ্কীর্ণতাকে চ্যালেঞ্জ জানানো।

আরো পড়ুন:- PVR এর সম্পূর্ণ নাম কী ? অথবা ICICI এর ? জানেন কী?

যেখানে বলিউডের মেইনস্ট্রিম অভিনেতা অভিনেত্রীরা সমকামী চরিত্রে অভিনয় করা থেকে বিরত থেকেছেন , সেখানে জারিন সমাজের বিভিন্ন অসুস্থতা সম্পর্কে আলোকপাত করার জন্য এই সিনেমার অফার গ্রহণ করেছেন।

আরো পড়ুন:- চলে গেলেন বাসু চ্যাটার্জি। শোকের ছায়া সিনেমহলে

আংরেজি মে ক্যাহতে হ্যায় এর পরিচালক হরিশ ব্যাস পরিচালিত এই ছবিটির পুরো শুটিং দিল্লি, নোয়াডা ও ধর্মশালা এবং তার আশেপাশে হয়েছে। ‘হাম ভী আকেলে তুমি ভী আকেলে’তে বীরের চরিত্রে অংশুমান ঝা অভিনয় করছেন এবং একইসঙ্গে এই প্রজেক্টের প্রযোজক হিসাবে কাজ করছেন৷

আরো পড়ুন:- বিগ বি’র বিবাহবার্ষিকী, শুভেচ্ছা সঙ্গে অজানা গল্প

জারিন জানিয়েছেন, “হাম ভি আকলে তুমি ভী আকলে দু’জন ব্যক্তির বীর এবং মানসীর এক মানবিক গল্প – বীর একজন গে এবং মানসী একজন লেসবিয়ান, এটা তাদের বন্ধুত্বের গল্প৷ এবং একটা পথভ্রমণ এবং সেইসাথে নানা ঘটনা কীভাবে তাদের জীবনে বদল আনে সেই নিয়েই এই সিনেমা৷ জারিন আরও জানিয়েছেন, এই গল্পটি তার মনের অত্যন্ত কাছের পছন্দের এবং এইধরনের গল্প সমাজে প্রকাশিত হওয়া দরকার, বিশেষত ভারতের মতো দেশে। তিনি মনে করেন, 377 অনুমোদন পেয়েছে , আইন থাকলেও এখনও বহু পরিবার রয়েছে, যেখানে মানুষ ইচ্ছেমত জীবন বেছে নিতে পারেন না৷ সেক্সুয়াল ওরিয়েন্টেশন সম্পর্কে খোলামেলা ভাবে কথা বলতে কুন্ঠাবোধ করেন৷

আরো পড়ুন:- চলে গেলেন সাজিদ -ওয়াজিদ এর ওয়াজিদ। পড়ে রইলো গান এর স্মৃতি

তবে তিনি আরও বলেছেন যে ছবিটি মোটেই প্রচার নয়। সমকামিতার বিষয় নিয়ে কাজ করলেও ছবিতে হিউমার থাকবে৷ এটি গত বছরের নভেম্বর মাসে ম্যানহাটনের নিউইয়র্কের দক্ষিণ এশীয় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রিমিয়ার হয়েছিল যেখানে এটি সেরা চলচ্চিত্রের পুরষ্কার জিতেছে। চলতি বছর জানুয়ারিতে রাজস্থান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও ছবিটি প্রদর্শিত হয়েছিল, যেখানে এটি সেরা পরিচালক, সেরা অভিনেতা এবং সেরা অভিনেত্রীর পুরষ্কার অর্জন করেছিল।

ছবিটি এখন ডিজিটাল মুক্তির জন্য প্রস্তুত রয়েছে। মার্চে ছবিটির মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল, তবে লকডাউন থাকায় তা সম্ভব হয়নি৷ তারা আশা করেছিলেন মে মাসের মধ্যে লকডাউন মিটে যাবে, কিন্তু তাও হয়নি। এখন থিয়েটারগুলি খোলার জন্য আরও অপেক্ষা করা এবং তারপরে ছবিটি রিলিজ করা সম্ভব নয়, তাই ডিজিটাল প্যাল্টফর্মকেই বেছে নেওয়া হয়েছে৷

আরো পড়ুন:- “মনে রেখো আমায়।” রবীন্দ্রনাথের এই বিখ্যাত উক্তিই ছিল ঋতুপর্ণ ঘোষের শেষ ফেসবুক পোস্ট ।

You may also like

1 comment

Leave a Reply!