Home বিনোদন নেপোটিজম ইস্যুতে বিস্ফোরক শ্রীলেখা মিত্র -ঋতুপর্ণা প্রসেনজিত সহ টলিউডের তাবড় অভিনেতা পরিচালকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ 

নেপোটিজম ইস্যুতে বিস্ফোরক শ্রীলেখা মিত্র -ঋতুপর্ণা প্রসেনজিত সহ টলিউডের তাবড় অভিনেতা পরিচালকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ 

by banganews
বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই স্বজনপোষণ ইস্যু মাথাচারা দিয়েছে৷ এরই মাঝে বৃহস্পতিবার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে টলিপাড়ার স্বজনপোষণের ইতিহাস নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। ভিডিওতে তিনি সরাসরি নাম উল্লেখ করে অভিযোগ এনেছেন এবং প্রতিভা থাকা সত্ত্বেও তাকে যথাযোগ্য সম্মান দেওয়া হয়নি।
শ্রীলেখা জানিয়েছেন, তিনি ভালোবেসে অভিনয় করতে এসেছিলেন, পড়াশুনায় ভালো হয়েও অন্য অনেক প্রফেশনের দরজা খোলা থাকলেও তিনি বেছেছিলেন অভিনয়৷ সঙ্গে জানান, ভিডিওতে সরাসরি নাম উল্লেখ করে আক্রমন করবার জন্য ভবিষ্যতে তাকে আরো বেশী বঞ্চনার শিকার হতে হবে কিন্তু তার হারাবার আর কিছু নেই।
ভিডিওতে শ্রীলেখা বলেন জীবনে কোনদিন কোন রাজনৈতিক দল করি নি৷ কোন দাদাকে মঞ্চে উঠে রাখিও পরাই নি। প্রযোজক-পরিচালকদের সঙ্গে বেড শেয়ার করি নি। আমি ভয় পাব কাকে? ইন্ডাস্ট্রিতে আমার কোন গডফাদার ছিল না কিছুর বিনিময় ছবি পাইয়ে দেওয়ার কেউ ছিলনা। ওড়িয়া ছবি সেখান থেকে বাংলা ছবি। নায়িকা চরিত্র পেতাম না তখন ইন্ডাস্ট্রি মানেই প্রসেনজিত চট্টোপাধ্যায়। আমি তার বোনের চরিত্রে অভিনয় করছি তখন ঋতুপর্ণার সঙ্গে প্রসেনজিতের প্রেম। ছবি না চললেও ঋতুপর্ণা প্রসেনজিত জুটি থাকবে। প্রসেনজিত চট্টোপাধ্যায় ঠিক করতেন নায়িকা এবং অন্যান্য চরিত্রে কারা অভিনয় করবেন। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত দিনের পর দিন দেরি করে সেটে গেলেও একের পর এক ছবিতে তিনিই নায়িকা থাকবেন৷
শ্রীলেখা শুধুমাত্র ঋতুপর্ণা প্রসেনজিত এর কথা বলেছেন তাই নয় তিনি বলেছেন,
অন্য আরেকজন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় যাকে আমরা বরাবর রাজনৈতিক সামাজিক নানা ইস্যুতে মতামত রাখতে দেখেছি তিনি তার ফেসবুক পেজ থেকে জানিয়েছেন শুধু যদি কারো সঙ্গে প্রেম করলেই বেশি কাজ পাওয়া যেত তাহলে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রসেনজিত চট্টোপাধ্যায় সাতটা, যীশু-সেনগুপ্ত সাতটা, অনির্বাণ ভট্টাচার্য কত টাকা নিয়েছেন সেখানে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় মাত্র তিনটি ছবিতে কাজ করেছেন তাহলে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন তার থেকে অনেক বেশি সৃজিতের সঙ্গে প্রেম হওয়া উচিত প্রসেনজিত যিশু অনির্বাণ পরমব্রত। তিনি বলেছেন ইন্ডাস্ট্রিতে শুধু অভিনেত্রীদের জায়গাটা নয়, অভিনেতাদেরও যায় সুতরাং যে অভিনেত্রী বেশি কাজ করছেন তিনি অনৈতিকভাবে কারো সঙ্গে প্রেম করছেন,বেড শেয়ার করছেন এটা অত্যন্ত নোংরা এবং স্লাট শেম করা হয়েছে।
একটি সংবাদমাধ্যম থেকে শ্রীলেখা মিত্র সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি অন্নদাতা ছবির প্রসঙ্গে বলেন অন্নদাতা প্রসেনজিত শ্রীলেখা জুটি হিট হওয়ার পরেও শ্রীলেখা কখনোই নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করতে পারেননি কারণ পরিচালক-প্রযোজক সকলেই তখন বুম্বাদার কথা শুনে চলতেন। কিন্তু অশোক ধানুকার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিনোদন জগতে জুটি তৈরি হয় গ্রহণযোগ্যতার উপরে। তিনি জানান, অন্নদাতা ছবিতে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত নায়িকা হিসেবে তাঁর প্রথম পছন্দ হলেও আমেরিকায় থাকার জন্য ঋতুপর্ণা তখন ছবিটি করতে পারেননি তাই পরবর্তীকালে শ্রীলেখা মিত্র কে ছবিতে নেওয়া হয়েছে। প্রসেনজিত এবং ঋতুপর্ণার জুটি যেহেতু দর্শকের কাছে অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য তাই ব্যবসায়িক স্বার্থে স্বাভাবিকভাবেই পরিচালক-প্রযোজকরা একের পর এক ছবি তাদের দিয়ে করিয়েছেন।
কেবলমাত্র ঋতুপর্ণা প্রসেনজিত নয় একের পর এক বিভিন্ন ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে তিনি অভিযোগ এনেছেন। শ্রীলেখা জানিয়েছেন সৃজিতের সঙ্গে বন্ধুত্ব থাকা সত্ত্বেও সৃজিত কখনোই শ্রীলেখাকে দিয়ে অভিনয় করাননি হয়তো স্বস্তিকা-সৃজিতের সম্পর্ক ছিল বলেই তিনি কাজ পাননি। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় নাকি বলেছিলেন তার স্ত্রীকে অন্য পরিচালকরা কাজে ডাকেন না তাই চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায় কে নিতে হয়।
এমনকি ঋতুপর্ণ ঘোষের মত পরিচালকের নাম করেও তিনি বলেছেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের থেকেও তিনি ( শ্রীলেখা) নাকি ভালো অভিনয় করেন বলে জানিয়েছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। কিন্তু ঐশ্বর্যর বক্সঅফিস কালেকশন অনেক বেশি তাই শ্রীলেখাকে বাদ দিতে হয়েছে।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, “আমার মুনমুন সেন অপর্ণা সেন এদের মত মা নেই, সন্তু মুখোপাধ্যায় এর মত বাবা নেই। তাহলে কি আত্মহত্যা করেই প্রমাণ করতে হবে তিনি বঞ্চনার শিকার হয়েছেন?
এতদিন চুপ করে থাকার পর হঠাত কেন এই প্রসঙ্গে সরব হয়েছেন শ্রীলেখা তা জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন এতদিন তিনি প্রসেনজিত-ঋতুপর্ণা সরাসরি নাম করে বলেননি কিন্তু এর আগেও বহু ইন্টারভিউতে তিনি জানিয়েছেন সমস্ত যোগ্যতা থাকা সত্বেও তিনি বঞ্চিত হয়েছেন যদিও শ্রীলেখার এই ধরনের বিরূপ মন্তব্যে নেটিজেনরা প্রশ্ন তুলেছেন এইভাবে নিজে একজন মহিলা হয়ে অন্য একজন মহিলার ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে কথা বলা কতটা যুক্তিযুক্ত? তিনি যে সময়ের কথা বলেছেন সেই সময় ঋতুপর্ণা ছাড়াও রচনা ব্যানার্জি শতাব্দী রায় ইন্দ্রানী হালদার এদের মতন প্রতিভাবান অভিনেত্রী একই সঙ্গে কাজ করেছেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে তিনি কি অহেতুক আক্রমণ করছেন৷ অনেকে আবার বলিউডের প্রসঙ্গ এনে বলছেন, স্বজনপোষণ এর মাধ্যমে সুযোগ একবার আসে, বারবার নয়, উদাহরণ হিসেবে তারা সোনাক্ষী সিনহা, অভিষেক বচ্চনের প্রসঙ্গ আনছেন৷

You may also like

1 comment

প্রবল চাপে অবশেষে মুখ খুললেন সলমন - TheBangaNews.com | Read Latest Bengali News | Bangla News | বাংলা খবর | Breaking News in Bangla from West Bengal June 21, 2020 - 12:30 pm

[…] আরও পড়ুন নেপোটিজম ইস্যুতে বিস্ফোরক শ্রীলেখা ম… […]

Reply

Leave a Reply!