Home দেশ আমার বন্দি কবুতরটি ছেড়ে দিন’ এমনই আবেদন পাকিস্তানি নাগরিকের মোদীর প্রতি

আমার বন্দি কবুতরটি ছেড়ে দিন’ এমনই আবেদন পাকিস্তানি নাগরিকের মোদীর প্রতি

by banganews

কাশ্মীর নিয়ে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে বিরোধ সর্বজনবিদিত। এবার একবার ফের তা সরগরম হলো। চলতি সপ্তাহের সোমবার কাশ্মীরের একটি গ্রামের লোকজন একটি ‘ সন্দেহজনক ‘ পায়রা আটক করে এবং এরপর তারা এটি পুলিশের হাতে তুলে দেয়।ভারতীয় পুলিশের তরফে বলা হয়েছে, কবুতরটির ‘পায়ে পরানো আংটিতে কিছু সাংকেতিক লেখা আছে।

একজন পাকিস্তানি নাগরিক ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তার আটক করা কবুতরটি ফিরিয়ে দেয়ার জন্য।জানা গেছে ওই পায়রাটির মালিকানা এক পাকিস্তানি নাগরিকের। নাম হাবিবুল্লাহ। ওই ব্যক্তি থাকেন ভারত সীমান্ত থেকে মাত্র চার কিলোমিটার দূরে পাকিস্তান শাসিত কাশ্মীরের এক গ্রামে। ওই ব্যক্তি অবশ্য এই অভিযোগ পুরোপুরি উড়িয়ে বলেছেন,সম্প্রতি ঈদ উৎসব উদযাপনের সময় তিনি এই ‘কবুতর’-টি উড়িয়েছিলেন।

আরো পড়ুন – লকডাউনের মধ্যে উঠে আসছে নারী নির্যাতনের চাঞ্চল্যকর তথ্য – নির্যাতন রুখতে রাজ্য সরকারের নতুন পদক্ষেপ

অন্যদিকে ভারতের পুলিশের তরফে জোর গলায় জানানো হয়েছে ঐ পায়রাটির পায়ে একটি রিং পরানো আছে এবং সেখানে একটি সংকেত লেখা আছে। তারা এই সংকেতের অর্থ উদ্ধার করার চেষ্টা করছে।
এ প্রসঙ্গে অবশ্য পায়রাটির মালিক সেই পাকিস্তানি নাগরিক হাবিবুল্লা বলছেন রিংয়ে ওসব কোড বা সংকেত মোটেই নয়। আসলে ওটি তার মোবাইল ফোন নম্বর।

অন্যদিকে, পাকিস্তানের ইংরেজি সংবাদপত্র ‘ ডন ‘-এ প্রকাশিত হাবিবুল্লাহর প্রায় এক ডজন পোষা ‘কবুতর’ রয়েছে। পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হাবিবুল্লাহ দাবি করেছেন তার পায়রাটি আসলে শান্তির প্রতীক এবং ভারতের অবিলম্বে উচিৎ ‘নির্দোষ ‘ একটি পাখিকে এভাবে ষড়যন্ত্রে যুক্ত না করা।

আরো পড়ুন – বিলুপ্তপ্রায় বিরল প্রজাতির প্রাণী ঘড়িয়াল নেপাল থেকে হুগলি চলে এলো

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান থেকে ভারতে উড়ে যাওয়া কোন কবুতর নিয়ে এরকম সমস্যা এটাই প্রথম নয়। ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে আরেকটি কবুতরকে আটক করা হয় ভারতে। এই কবুতরটির সঙ্গে পাওয়া যায় একটি চিরকুট যাতে নাকি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল।

 

You may also like

2 comments

Leave a Reply!