Home দেশ রাশিয়ার টিকা কী ব্যবহৃত হবে ভারতে? যা বললেন AIIMS-এর ডিরেক্টর

রাশিয়ার টিকা কী ব্যবহৃত হবে ভারতে? যা বললেন AIIMS-এর ডিরেক্টর

by banganews

নয়াদিল্লি, ১২ ই অগাস্ট, ২০২০ : AIIMS-এর ডিরেক্টর রণদীপ গুলেরিয়া একটি সাক্ষাৎকারে জানান রাশিয়ার ভ্যাকসিন আদৌ সুরক্ষিত এবং কার্যকর কিনা সে বিষয়ে গবেষণা প্রয়োজন। সাবজেক্টের সেফটি ডাটা এবং ‘সাস্টেইনেবিলিটি’ দেখে তবেই অন্তিম সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব। তিনি এও জানান, ভারতের গবেষণা ইতিমধ্যেই দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে গিয়ে পৌঁছেছে। এদেশের বিপুল জনসংখ্যার কাছে তা পৌঁছে দেওয়ার সক্ষমতাও রয়েছে। তার মতে, ভ্যাকসিনের সাফল্য ভাইরাসটির গতিবিধি পরিবর্তন এবং মানবদেহে প্রতিষেধক প্রয়োগের পর তার আচরণের ওপর নির্ভরশীল।

আরও পড়ুন আইপিএল-এ ডাক না পেয়ে ক্রিকেটারের আত্মহত্যা

মস্কোর গামালেয়া ইনস্টিটিউট এবং রাশিয়ান ডিফেন্স মিনিস্ট্রির যৌথ উদ্যোগে বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন “স্পুটনিক V” আবিষ্কৃত হলেও এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা এবং সুরক্ষার প্রশ্নে এখনো সন্দিহান বিশ্বের বহু দেশের গবেষকরা। এই ভ্যাকসিন দুই মাসেরও কম সময়ে শেষ পর্যায়ের হিউমান ট্রায়াল সম্পন্ন করেছে। বহু বিশেষজ্ঞের মতে রাশিয়া বিশ্বের প্রথম কোভিড ভ্যাকসিন বানানোর প্রতিযোগিতায় জয়ী হতে বেশ কিছু ছোট ধাপ এড়িয়ে গিয়েছে এবং সরাসরি জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য ভ্যাকসিনটিকে বাজারজাত করছে। গবেষণা ক্ষেত্রে এই তাড়াহুড়ো পরবর্তীতে মানবদেহে কোন বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে কিনা তার উত্তর দেবে সময়।

আরও পড়ুন করোনাযুদ্ধে সাংস্কৃতিক অস্ত্র, কবিতা লিখলেন মমতা

সাক্ষাৎকারে ডক্টর গুলেরিয়া বলেন, “রাশিয়ায় ভ্যাকসিন প্রয়োগ যদি সফল হয় তাহলে আমাদেরকে অনুপুঙ্খ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে এর ডাটা বিশ্লেষণ করে দেখতে হবে যে এটি ‘সেফ’ এবং ‘এফেক্টিভ’ কিনা। যদি এই প্রতিষেধকের কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া না থাকে এবং তা যদি সঠিক অনাক্রম্যতা ও সুরক্ষা দিতে সক্ষম হয় কেবল তাহলেই ভারত ভ্যাকসিনটির মাস প্রোডাকশনের কথা ভাবতে পারে।”

You may also like

1 comment

Leave a Reply!