Home দেশ বিগত ২৭ বছরে এরকম পঙ্গপালের উৎপাত দেখা যায়নি । কেন এমন হলো?

বিগত ২৭ বছরে এরকম পঙ্গপালের উৎপাত দেখা যায়নি । কেন এমন হলো?

by banganews

পৃথিবীতে যেন কোনো অজানা অভিশাপের ছোঁয়া লেগেছে। প্রথমে মহামারী করোনার জেরে নিম্ন এবং মধ্যবিত্ত মানুষের জীবনযুদ্ধ কঠিন থেকে কঠিনতর হচ্ছে দিন দিন । তারপর এলো ঘূর্ণিঝড় আমফান। এরপর রাজস্থান , মধ্যপ্রদেশ এবং উত্তরপ্রদেশে  শস্য ভয়াবহ ভাবে আক্রান্ত করতে চলেছে ছোট্ট পতঙ্গ পঙ্গপাল।

চলতি মাস থেকে ভারতের পাঞ্জাব ঢুকে পড়েছে এই পঙ্গপালের দল। এ ব্যাপারে ‘বিশ্ব খাদ্য ও কৃষি সংস্থা’ ভারতকে সতর্ক করেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে এই পঙ্গপাল দু’দফায় ভারতে আক্রমণ করতে পারে। মূলত ইরান, ইথিওপিয়া,সোমালিয়া ও তার আশপাশের দেশ থেকে তেরে আসবে এই পঙ্গপালের দল ভারতের দিকে। প্রসঙ্গত, গত বছরের শেষ দিকে এই সমস্ত দেশে আক্রমণ চালিয়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে এই পঙ্গপালের দল। বিশেষজ্ঞদের মতে আফ্রিকার কয়েকটি দেশের পর পাকিস্তান এবং সর্বশেষ ভারতে আক্রমণ চালানোর পরে আগামী বছর বাংলাদেশে ঢুকতে পারে এই পঙ্গপালের দল। ব্যাপক ভাবে ফসল নষ্টের পাশাপাশি পঙ্গপালের দল জনজীবনও বিপর্যস্ত করবে।

সম্প্রতি পাকিস্তানের এই পঙ্গপালের দল ব্যাপক আক্রমণ শুরু করেছে। সেদেশের সিন্ধু প্রদেশ প্রথমে শুরু হলেও তা পরে বিভিন্ন প্রদেশে ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পাকিস্তানের জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। বিশ্ব খাদ্য ও কৃষি সংস্থা বলছে সারা পৃথিবীতে যেভাবে পঙ্গপালের উপদ্রব বেড়ে চলেছে তাতে খাদ্য সংকট দেখা দেওয়াটা খুবই স্বাভাবিক। রাজস্থানের ছবি দেখলে শিউরে উঠতে হয় । জনবসতির মধ্যে আক্রমণ করছে পঙ্গপাল।

আরো পড়ুন – ভেঙে ফেলা হচ্ছে অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘পৃথ্বীরাজ’ সিনেমার শুটিংয়ের সেট

প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে পঙ্গপালের সংখ্যা পৃথিবীতে ক্রমশ বেড়ে চলেছে। এই পতঙ্গ দলবদ্ধ অবস্থায় ঝাঁক বেঁধে থাকে। এরা সাধারণত আধা শুকনো ও আধা মরুভূমি পরিবেশে থাকতে পছন্দ করে। কৃষি বিজ্ঞানীদের মতে জলবায়ু পরিবর্তিত হবার ফলে এবং অকাল বৃষ্টি এবং সাইক্লোন এর ফলে এদের প্রকোপ আরো বেড়ে চলেছে। সাধারণত পঙ্গপাল তিন মাসের মধ্যে বিশ গুণ সংখ্যা বাড়িয়ে ফেলতে পারে। যে অঞ্চলে তারা আক্রমণ করে সেখানে খাদ্যশস্য শেষ না হওয়া পর্যন্ত অন্যত্র যায় না। দলবদ্ধ অবস্থায় এরা অত্যন্ত বিধ্বংসী হয়ে ওঠে।একটি বড় পঙ্গপাল দিনে প্রায় এ কশো কুড়ি মাইল পর্যন্ত জমির ফসল খেয়ে ফেলতে পারে মাত্র কয়েকঘণ্টায়।  কেবলমাত্র  খাবারই খায়না একইসঙ্গে প্রজননের কাজটিও করে চলে। এই পতঙ্গ সাধারণত জমির কাছাকাছি অঞ্চলে উড়তে পারে খুব উঁচু দিয়ে উড়তে পারে না কিন্তু এই স্বাভাবিক প্রবণতা  ছাড়িয়ে এবছর তারা  উড়ছে অনেক ওপর দিয়ে ।

আরো পড়ুন – সপ্তাহের শেষে কালবৈশাখীর পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

ইতিমধ্যেই ভারতের পাঞ্জাবে ঢুকে পড়েছে পঙ্গপালের দল যার ব্যাপ্তি প্রায় তিন কিলোমিটার।এই প্রেক্ষাপটে পাঞ্জাবের আশপাশের কয়েকটি রাজ্যে ইতিমধ্যেই সর্তকতা জারি করা হয়েছে। ভারতের রাজস্থান,উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ,গুজরাট,মহারাষ্ট্র আরো কয়েকটি রাজ্যে এই পঙ্গপালের দল খাদ্যশস্য ব্যাপকভাবে বিনষ্ট করতে পারে বলে আশঙ্কা। কৃষি বিজ্ঞানীদের মতে সত্যি যদি পঙ্গপালের দল ভারতে এইভাবে ঢোকে তাহলে বলা যাবে বিগত ২৭ বছরের মধ্যে এই অঞ্চলে পঙ্গপালের এমন ব্যাপক আক্রমণ এর আগে হয়নি।

You may also like

1 comment

Leave a Reply!