Home পাঁচমিশালি গ্রহণ মানে খাওয়াদাওয়া বন্ধ করা নয়

গ্রহণ মানে খাওয়াদাওয়া বন্ধ করা নয়

by banganews

দেবীপ্রসাদ দুয়ারি

(ডিরেক্টর, এম পি বিড়লা প্ল্যানেটোরিয়াম)

গ্রহণ নিয়ে মানুষের মধ্যে কুসংস্কারের অন্ত নেই। জল আ-ঢাকা থাকলে খাওয়া যাবে না। খাবারের তুলসী পাতা দিয়ে রাখতে হবে। অনেকে খাবার ফেলে দেন। সন্তানসম্ভবাদেরও নানারকম নিয়ম মানতে বলা হয়। পুজো-আচ্চার উপর জোর দেওয়া হয়। বলা হয়, নিয়ম না-মানলে বাচ্চার নাকি ক্ষতি হয়ে যাবে! এগুলো সবই কুসংস্কার, কোনও সন্দেহ নেই।

কুসংস্কার বিষয়টিতে কোনও কোনও ক্ষেত্রে অনেকের স্বার্থ জড়িত থাকে। আবার অনেকে ভুল ধারণা পোষণ করে বসে থাকেন, যা বৈজ্ঞানিক মতে ভ্রান্ত। সাধারণ মানুষের মধ্যে অনেকেই এই ধারণা পোষণ করেন।
যেমন ধরা যাক কেউ বলেন, সূর্যের তাপে ক্ষতিকর জীবাণু মরে যায়। সূর্যগ্রহণের সময় তাপ কম থাকায় সেই জীবাণু সক্রিয় হয়ে ওঠে। তাতে জল, খাবার জীবাণুময় হয়ে যায়। তা হলে তো বলতে হয়, সন্ধ্যার পর রান্না করা, খাবার খাওয়া কখনওই উচিত নয়। আসলে এই ধরনের আলোচনার কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। আজ পর্যন্ত এই ধরনের কোনও দাবির পক্ষে প্রমাণ বিজ্ঞানীরা দিতে পারেননি। দুর্ভাগ্যের বিষয়, এই নিয়ে সবসময় এত আলোচনার পরও বহু মানুষের ভুল ধারণা বদলানো যায়নি। সবাইকে বলব, গ্রহণের মধ্যেই নির্দ্বিধায় রান্না করতে পারেন, খাওয়া-দাওয়া সারতে পারেন। কোনও দুশ্চিন্তা নেই।

আরও পড়ুন সূর্যগ্রহণের ফলে হওয়া ধাতব পরিবর্তনেই ছড়িয়ে পড়েছে করোনা -দাবী চেন্নাইয়ের বিজ্ঞানীর

এর সঙ্গে এ বছর আবার যোগ হয়েছে, সূর্যগ্রহণের পর করোনা চলে যাবে। এই ধরনের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে একটা আলোচনা গড়ে তোলা দরকার। সমাজের শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষের সকলকেই দায়িত্ব নিতে হবে।

তাহলে সূর্যগ্রহণের সময় কী কী করতে হবে?

খালি চোখে সূর্যের দিকে তাকাবেন না। দৃষ্টিশক্তি নষ্ট হয়ে যেতে পারেসানগ্লাস, গগলস, এক্স-রে প্লেটের মধ্যে দিয়ে সূর্যের দিকে তাকালেও ক্ষতি হতে পারেঅ্যালুমিনাইজড মায়লার ফিল্টার, ওয়েল্ডার্স গ্লাস (নম্বর ১৪) বা পিন হোল ক্যামেরা ব্যবহার করা যেতে পারে।

You may also like

1 comment

Leave a Reply!