Home পাঁচমিশালি দীর্ঘদিনের প্রথা ভেঙ্গে এবার পুরীর রথ টানবে হাতি

দীর্ঘদিনের প্রথা ভেঙ্গে এবার পুরীর রথ টানবে হাতি

by banganews

দীর্ঘদিনের প্রথায় বাঁধা হয়ে দাঁড়াল মহামারী করোনা ভাইরাস। এবছর পুরীর রথ টানতে পারে হাতি এমনটাই জানা যাচ্ছে তবে এখনও সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত নয়। প্রতি বছর কয়েক লক্ষ ভক্ত ভিড় জমায় পুরীর রথে। কিন্তু এবছরটা একটু আলাদা। করোনার মত মারণ ভাইরাস সব ওলট পালট করে দিয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাটাই এখন মূলমন্ত্র আর এই কারণেই কিভাবে বিধিনিষেধ মেনে রথযাত্রা সম্পন্ন হবে তা নিয়ে আলোচনায় বসবে পুরীর মন্দির কর্তৃপক্ষ। সুত্রের খবর অনুযায়ী এই বছরে পুরীর মন্দির চত্বরে ভক্তদের প্রবেশ নিশিদ্ধ করা হয়েছে। শুধু মাত্র নিয়ম রক্ষার জন্যই রথযাত্রা পালন করা হবে। কিন্তু রথ টানবে কে এই মর্মে ওড়িশা হাইকোর্ট রাজ্য সরকারের কাছে প্রস্তাব পেশ করে হাতিকে দিয়ে এবছর রথ টানানো হোক, যদিও ওড়িশ্যা সরকার এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেয়নি।

আরও পড়ুন পুরীর মন্দির বন্ধজগন্নাথদেব এখন কোথায়, জানেন?

তবে পুরীর মন্দির থেকে মাসির বাড়ির পর্যন্ত এলাকায় জারি থাকবে ১৪৪ ধারা। আগামী ২৩ শে জুন রথযাত্রা, ১৬ জুন মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন মন্দির সোসাইটির সদস্যরা।”ইতিমধ্যেই পর্যটকদের কথা ভেবে পুরীর সমুদ্র সৈকতে হোটেল খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে পর্যটকরা তিন দিনের বেশি হোটেলে থাকতে পারবেন না। এমনকি রথযাত্রার দিন পর্যটকরা আসতে পারবেন না পুরীর জগন্নাথ দেবের মন্দির চত্বরে, বলেও জানানো হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। তিনটি হাতি রাখার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, তবে আরও কড়াকড়ি হবে পুরীর মন্দির চত্বর। রথযাত্রার দিন পুরীর মন্দির থেকে মাসির বাড়ি পর্যন্ত জারি থাকবে ১৪৪ ধারা। মন্দিরের মুখ্য দ্বৈতাপতি রাজেশ দ্বৈতাপতি জানান, “প্রতিবার প্রভু জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উপলক্ষে লক্ষ লক্ষ মানুষের সমাগম হয় পুরীতে। এবারের পরিস্থিতি অন্যরকম, একেবারে নতুন। রথযাত্রায় সামিল হতে পারবেন শুধুমাত্র সেবাইতরা।

You may also like

2 comments

Leave a Reply!