Home বিদেশ করোনা কে নিয়ে বিবাদ আমেরিকা ও চিনের

করোনা কে নিয়ে বিবাদ আমেরিকা ও চিনের

by banganews

চীন যে করোনা র জন্ম স্থান সেটা সবাই জানে এই নিয়েই বিবাদ লেগেছে আমেরিকা ও চিনের। কিছু দিন ধরে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীন কে দোষ দিয়ে যাচ্ছেন তার বক্তব্য যে চিনের ল্যাবরেটরি থেকেই এই ভাইরাস ছড়িয়েছে তাই সব দায় চিনের এই প্রথম চীন ও মুখ খুলল আমেরিকার বিরুদ্ধে তার বক্তব্য যে যদি আমেরিকার কাছে প্রমাণ থাকে তা হলে সেটা দেখাক আর যদি না দেখাতে পারে তা হলে নিজের দেশ সামলাক। তারা আর এই অভিযোগ সহ্য করবে না চীন খুব ভালো করেই জানে যে তার কথা ছাড়া তার দেশে একটি পাখি ও নড়ে না সেখানে আমেরিকার পক্ষে সম্ভব না কিছুই প্রমাণ করা।তারা প্রথম থেকেই আমেরিকার কোনো বিশেষজ্ঞদের তাদের দেশে ঢুকতে দেন নি এর এখন কিছু করতে ও পারবে না কারণ এর মধ্যে চীন যা করার করে নিয়েছে।

চীন কে দোষারোপ করা এর হঠাৎ করে চীন এর ওপর ব্রেক লাগানো আলাদা ব্যাপার। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জানেন যে কোনো রকম ভুল হলে তাকে ভবিষ্যৎ এ ভুগতে হবে যেমন এখন তার গোটা দেশ ভুগছে। কোনোদিন আমেরিকা পুরোপুরি লক ডাউন মানে নি। তা হলে চীন কে দোষ দিয়ে কি নিজের ভুল গুলো লুকিয়ে রাখতে চাইছে।

এখনও পর্যন্ত আমেরিকার আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫০০০ মানুষ। এর আগে যে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার এর ঘটনা ঘটেছিল তাতে মারা যান ৩০০০  মানুষ। এই করোনা র নিরিখে অনেক কম। ট্রাম্প প্রথম থেকেই ভেবেছিলেন এটা সামান্য ভাইরাস যা সময়ে এর সাথে সাথে মিলিয়ে যাবে তাই কারোর কথা শোনার দরকার বোধ করেন নি তিনি। তাই তিনি নিজের ভুল গোপন করতে বলছেন যে চিনের কাছে এমন কিছু আছে যাতে করোনা ঠিক হয়ে যায় কিন্তু তারা দিচ্ছে না।

অদূর ভবিষ্যতে আমেরিকা একটি বিল পাশ করতে চলেছে যাতে তারা চীন কে সম্পূর্ণ বয়কট করবে কিন্তু আপাতত চীন কে ছাড়া চলবে না। আমেরিকা র এই দোষারোপ এর জবাবে চীন একটি টুইটার এ ভিডিও বানিয়েছে যাতে দেখা যাচ্ছে যে চীন অনেকবার সাবধান করলে ও আমেরিকা কোনোদিন গ্রাহ্য করেনি সে কথা।

আমেরিকা WHO কে ও পক্ষপাতিত্ব করার আরোপ দিয়েছেন। হু ও বলছেন যে আমেরিকা দেখাক যদি কিছু প্রমাণ থাকে তার কাছে। তারা চীন এর কোনো ভুল দেখতে পাচ্ছেন না। তাই এই কারণেই যখন উহান এর বিমান বন্ধ করতে বলা হয় তখনও হু বলে যায় যে এই ভাইরাস বাতাসে ছড়ায় না যেটা পরবর্তী কালে ভুল প্রমাণিত হয়।

You may also like

1 comment

Leave a Reply!