Home দেশ ফের ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল কাশ্মীর 

ফের ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল কাশ্মীর 

by banganews
ফের ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল দেশের একপ্রান্ত। মঙ্গলবার সকালে ভূ-কম্পন অনুভূত হল কাশ্মীরে। রিখটার স্কেলে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪ ম্যাগনিটিউড। ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি অনুসারে, ভোর ৮ টা ৫৬ মিনিটে জম্মু ও কাশ্মীরের কাতরা  অঞ্চল থেকে ৮৪ কিমি পূর্বে ভূমিকম্প আঘাত হানে৷  জম্মু ও কাশ্মীরে জুন মাসে তিনটি স্বল্প-তীব্র কম্পন দেখা গিয়েছিল।  এর আগে ১  জুন, দুটি একক দিনে দুটি হালকা ভূমিকম্প কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে ধাক্কা দিয়েছে।
কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটি রিখটার স্কেলে ৩.৯ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছিল।  দুপুর ২ টা ৪০ মিনিটে কম্পনের অনুভূতি অনুভূত হয়েছিল।  ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি জানিয়েছে যে ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল জম্মুর কাতরা থেকে ৮৫ কিমি পূর্বে ছিল।
কাশ্মীরের হানলে থেকে ৩০০ কিলোমিটার উত্তরপূর্বে ছিল কম্পনের উৎসস্থল। পাকিস্তান, আফগানিস্তান, তাজাখস্তান এবং চিনেও অনুভূত হয়েছে কম্পন।  একের পর এক ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে উত্তর-পূর্ব ভারত। রবিবার কেঁপে উঠেছে মেঘালয়ের একাংশ। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ছিল ৩.৯।
কিছুদিন আগে, দেশের উত্তর-পূর্বের রাজ্য একাধিকবার কেঁপে উঠেছে। অসম সহ মিজোরাম কেঁপেছে একাধিকবার। জুনের ১৮ তারিখ থেকে ২১ তারিখের মধ্যে কম্পন বোঝা গিয়েছে প্রায় পাঁচবারের বেশি। বিষয়টিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ।
উল্লেখ্য, জুনের ১৮ তারিখ ভূমিকম্প কাঁপিয়ে দিয়েছে দেশের উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিকে। এদিন রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের তীব্রতা ছিল ৫। ভূমিকম্পের তীব্রতা মাঝারি হলেও কম্পন অনুভূত হয়েছে গোটা উত্তর-পূর্বেই। মিজোরাম রাজ্যের চাম্পাই জেলায় ভূপৃষ্ঠ থেকে ৮০ কিলোমিটার ভেতরে কম্পনের উৎসস্থল বলেই জানিয়েছে স্থানীয় সিসমিক সেন্টার।
দুদিন আগেই লাদাখে অনুভূত হয়েছিল ভূমিকম্প। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ছিল ৪.৫। ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল কারগিল। তার কিছুক্ষণ আগেই বিকেল ৩টে নাগাদ দিল্লিতে কম্পন অনুভূত হয়। তার উৎসস্থল ছিল হরিয়ানার রোহতক। এপ্রিল মাস থেকে ১২ বার কম্পন অনুভূত হয়েছে দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায়। তারমধ্যে ৮টি ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল রোহতক।

You may also like

2 comments

Leave a Reply!