Home কলকাতা প্রতিবন্ধী শংসাপত্রের জন্য ভিডিও কলেই শারীরিক পরীক্ষা

প্রতিবন্ধী শংসাপত্রের জন্য ভিডিও কলেই শারীরিক পরীক্ষা

by banganews

কলকাতা, ১৮ নভেম্বর, ২০২০ঃ  বাঁশদ্রোণীর বাসিন্দা দেবাশিস ঘোষ ও মৌমিতা ঘোষের একমাত্র কন্যা সন্তান দেবস্মিতা মাসকুলার অ্যাট্রপিতে আক্রান্ত। দশ বছর বয়সে শৈশব বাধা পড়েছে হুইল চেয়ারে। এই করোনা পরিস্থিতিতে একদিনের জন্য বাড়ি থেকে মেয়েকে বের করেননি এই দম্পতি। কিন্তু প্রতিবন্দী শংসাপত্রের জন্য বাঙ্গুর হাসপাতালে গিয়ে মেডিক্যাল টেস্ট করতে হবে। এই পরিস্থিতিতে কোভিড হাসপাতালে গিয়ে মেয়েকে শারীরিক পরীক্ষা করাতে হবে এই ভেবেই ঘুম উড়েছিল দম্পতির। হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও কলিংয়ের মাধ্যমে ডাক্তারি পরীক্ষার কথা ভাবেন ঘোষ দম্পতি, সেই মত রাজ্যের মুখ্যসচিবকে চিঠি লেখেন।

আরও পড়ুন মুসলিমহীন নীতিশের মন্ত্রিসভা, বিহারের ইতিহাসে প্রথম

অন্যদিকে বাঙ্গুর হাসপাতালের সুপার ডা. শিশির মণ্ডল বিষয়টি ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার ডা. সন্দীপ ঘোষের নজরে আনেন। সন্দীপবাবু স্বাস্থ্যভবনের কাছে অনুমতি চান ভিডিও কলিংয়ে মেডিক্যাল টেস্টের ব্যাপারে। সকলের সমবেত প্রয়াসে ও মানবিকতার খাতিরে শিথিল হয় সরকারি নিয়ম। সম্প্রতি ভিডিও কলিংয়ের মাধ্যমেই সম্পন্ন হয়েছে দেবস্মিতার মেডিক্যাল টেস্ট। দেবস্মিতার মা মৌমিতা ঘোষের কথায় “অতি বিরল রোগে আক্রান্ত আমার মেয়ে। এই সার্টিফিকেট টা না পেলে খুবই সমস্যা হত”। অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়াতে পেরে খুশি সন্দীপবাবুও।তবে দেবস্মিতার মতো ঘটনা এই প্রথম। এই পথ অনুসরণ করে অতিবিরল রোগে আক্রান্তদের ক্ষেত্রে ভিডিও কলের মাধ্যমে মেডিক্যাল টেস্টের ব্যবস্থা করা যেতেই পারে বলে মনে করছে চিকিৎসক ও প্রশাসনিক মহলের একাংশ। এককথায় এই ঘটনায় মানবিকতার অনন্য নজির তৈরি হয়েছে।

You may also like

Leave a Reply!