Home বঙ্গ এবার আর্টস কমার্স পড়ুয়ারা পাবেন আই আই টিতে পড়ার সুযোগ

এবার আর্টস কমার্স পড়ুয়ারা পাবেন আই আই টিতে পড়ার সুযোগ

by banganews

আই আই টি তে সুযোগ পাওয়া এখনও ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার জীবনে অন্যতম একটা লক্ষ্য। ভারতের ইঞ্জিনিয়রদের ক্ষেত্রে আইআইটিতে সুযোগ পাওয়াটাই কেরিয়ারের একটা সাফল্য। কিন্তু নন-টেকনিক্যাল ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আসা শিক্ষার্থীদের কাছে কি আইআইটিতে সুযোগ পাওয়ার পথও এবার খুলে গেল।, আপনার পছন্দের বিষয় বেছে নিয়ে আইআইটিতে প্রবেশের এখনও উপায় আছে। সম্প্রতি অনেক আইআইটি আর্টস এবং কমার্স ব্যাকগ্রাউন্ডের ছাত্রদের জন্য ডিজাইন, ম্যানেজমেন্ট এবং অন্যান্য বিষয়ে কোর্স অফার করছে।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সুযোগগুলি: ব্যাচেলর অব ডিজাইন (বি.ডেস): ব্যাচেলর অব ডিজাইন হচ্ছে একটি চার বছরের আন্ডার গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রাম, যা শেখায় ডিজাইন প্রিন্সিপলস, ইজেমেস এবং ফটোগ্রাফি। প্রার্থীরা এই বিষয়ে ভর্তি হতে পারেন স্নাতকস্তরের সাধারণ প্রবেশিকা পরীক্ষা (ইউসিইইডি)-র মাধ্যমে। জাতীয় স্তরের এই প্রবেশিকা পরীক্ষাটি আইআইটি বোম্বে দ্বারা পরিচালিত হয় এবং এতে ভিজ্যুয়ালাইজেশন, স্থানিক ক্ষমতা, নকশা চিন্তা এবং সমস্যা সমাধান, পর্যবেক্ষণ, নকশা সংবেদনশীলতা, বিশ্লেষণাত্মক এবং যৌক্তিক যুক্তি, ভাষা এবং সৃজনশীলতা, পরিবেশ এবং সামাজিক সচেতনতা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।
বর্তমানে, তিনটি আইআইটি থেকে এই কোর্স করানো হচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে আইআইটি বোম্বে (৩৭ আসন), আইআইটি হায়দরাবাদ (২০ আসন) এবং আইআইটি গুয়াহাটি (৫৬ আসন) রয়েছে। আইআইটি দিল্লিও আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে বি.ডেস কোর্স চালু করছে। পাশপাশি ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ইনফরমেশন টেকনোলজি, ডিজাইন অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারিং, জব্বলপুরও (৬৬ আসন) এই কোর্সটি শুরু করছে।

আরো পড়ুন

রাজ্যের তরফে বিনামূল্যে মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং কোচিং, আজই আবেদন করুন

যোগ্যতার মাপকাঠি: যে কোন প্রার্থী যে দ্বাদশ শ্রেণী পাশ করার পর এই কোর্সে ভর্তির জন্য প্রবেশিকা পরীক্ষা দিতে পারে। তবে তাঁর বয়স ২৪ বছরের কম।

মাস্টার অব ডিজাইন (এম.ডেস): মাস্টার অফ ডিজাইন হল একটি দুই বছরের স্নাতকোত্তর কোর্স যা ডিজাইন কোর্সে স্পেশালাইজেশনের জন্য করা যেতে পারে। মানবিক এবং বাণিজ্য ব্যাকগ্রাউন্ডের শিক্ষার্থীরা এই কোর্সে ভর্তি হতে পারেন। আগ্রহী আবেদনকারীরা এই কোর্সে সিইইড- এর মাধ্যমে এই কোর্সে ভর্তি হতে পারেন। বর্তমানে, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি, ডিজাইন অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারিং, জব্বলপুর ছাড়াও ছয়টি আইআইটিতে এই কোর্সে ভর্তি হওয়ার সুযোগ রয়েছে। কোর্সটি আইআইটি বোম্বে, আইআইটি হায়দরাবাদ, আইআইটি গুয়াহাটি, আইআইটি দিল্লি, এবং আইআইটি কানপুর থেকেও করা যেতে পারে।

যোগ্যতার মাপকাঠি:
এই কোর্সের ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে কমপক্ষে তিন বছরের ডিগ্রি, ডিপ্লোমা বা স্নাতকোত্তর কোর্স সম্পন্ন করতে হবে। যে বিষয়গুলি তাঁরা বেছে নিতে চান সে অনুযায়ী কলেজগুলি উক্ত প্রোগ্রামের বিশেষত্ব নির্দিষ্ট করবে। উপরন্তু, জিডি আর্টস ডিপ্লোমা প্রোগ্রামে উত্তীর্ণ প্রার্থীরাও সিইইডি পরীক্ষা দেওয়ার যোগ্য।

এমএ স্পেশালাইজেশন: মাস্টার অফ আর্টস-এর দুই বছরের স্নাতকোত্তর প্রোগ্রামটির মধ্যে রয়েছে- ভাষা, সমাজকর্ম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, সমাজবিজ্ঞান, ভূগোল, দর্শন এবং অন্যান্য বেশ কিছু বিষয়। এই কোর্সের বিষয়গুলি প্রার্থীদের দ্বারা নির্বাচিত বিষয়ের উপর নির্ভর করে। বর্তমানে এই কোর্সটি শুধুমাত্র তিনটি আইআইটিতে আছে- আইআইটি গান্ধীনগর, আইআইটি মাদ্রাজ এবং আইআইটি গুয়াহাটি। এই আইআইটিগুলির প্রত্যেকটি এমএ -তে ভর্তির জন্য নিজস্ব লিখিত পরীক্ষা এবং ইন্টারভিউয়ের ব্যবস্থা করে থাকে।

যোগ্যতার মাপকাঠি: আইআইটি কর্তৃক প্রদত্ত এমএ কোর্সে ভর্তির জন্য প্রার্থীদের যেকোনও স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি সম্পন্ন করতে হবে। পাশাপাশি এক্ষেত্রে রয়েছে যোগ্যতা অর্জনের জন্য প্রাপ্ত নম্বরের শতাংশের নূন্যতম মাপকাঠি।

মাস্টার অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন: এমবিএ -তে ভর্তির জন্য প্রার্থীরা আইআইটি দ্বারা পরিচালিত ম্যানেজমেন্ট কোর্সও দেখতে পারেন। এক্ষেত্রে সিএটি- তে প্রার্থীর পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে প্রাথমিক তালিকা প্রস্তুত করা হয়। এরপর হয় গ্রুপ ডিসকাশন এবং ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকার পর্ব। তারপরই ঘোষণা করা হয় চূড়ান্ত তালিকা। বর্তমানে, আইআইটি বোম্বে, আইআইটি দিল্লি, আইআইটি মাদ্রাজ, আইআইটি রুড়কি, আইআইটি কানপুর, আইআইটি ধানবাদ, আইআইটি খড়গপুর এবং আইআইটি যোধপুর সহ আটটি আইআইটি থেকে এমবিএ কোর্সটি করা যেতে পারে।

You may also like

Leave a Reply!