Home বিনোদন সৌমিত্রজেঠুর কাছ থেকে লেখা শোনার অভিজ্ঞতা যার হয়েছে সে-ই জানে…

সৌমিত্রজেঠুর কাছ থেকে লেখা শোনার অভিজ্ঞতা যার হয়েছে সে-ই জানে…

by banganews

শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়

শৈবাল মিত্রের একটি ছবিতে কাজ করছিলাম একসঙ্গে। সৌমিত্রজেঠু না আমার সঙ্গে বন্ধু হয়ে গিয়েছিলেন। আম র বাবার সঙ্গে যেভাবে মিশতেন, আমার সঙ্গেও সেভাবেই। কোনও বয়সজনিত পার্থক্য রাখতেন না। এই গুণটা ওঁর ছিল। শুধু আমার সঙ্গে নয়। সমস্ত অনুজ অভিনেতার সঙ্গেই ওঁর একই ব্যবহার। কোনও গর্ব ছিল না তাঁর। নিজের আলাদা ওজন নিয়ে কোনও মাথাব্যথা ছিল না।
সৌমিত্রজেঠুকে নিয়ে আমার সবচেয়ে বড় অভিজ্ঞতা হল, শৈবালদার ছবির সময়টা। শুটিংয়ের শেষে রাতের বেলা তাঁর ঘরে সবাই এসে এককাট্টা হতাম। সৌমিত্রদা তাঁর লেখা পড়তেন। নিজের সম্পর্কে কিছু লিখছিলেন। সেটা পড়ে শোনাতেন। সৌমিত্রজেঠুর কাছ থেকে লেখা শোনাটাই সবচেয়ে বড় ব্যাপার। বাংলা ভাষায় এমন দখল কারও থাকতে পারে! ভাবতেও পারা যায় না।
লেখাপড়া জানতেন তো অনেক। তবে তাঁর লেখায় কোনও জ্ঞান ফলানোর ব্যাপারটাই নেই। অথচ কী অনায়াস লেখা। কিন্তু কী তার গভীরতা!
নববর্ষের আড্ডায় বসুশ্রীতেও দেখেছি, অফিসঘরে বসে আড্ডা দিচ্ছেন সৌমিত্রজেঠু। যাঁদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছেন, তাঁরা কেউই সমবয়সী নন। তবু কেমন এক হয়ে মিশে গেছেন সকলের সঙ্গে।
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় মানুষটি আসলে এমনই। নিজের ওজনটা অন্যের মধ্যে ভাগ করে দিতে জানতেন।

You may also like

Leave a Reply!