Home লাইফস্টাইল মিক্সড রিয়ালিটির অভিজ্ঞতা দেবে জিও গ্লাস ভিডিও কনফারেন্সিং

মিক্সড রিয়ালিটির অভিজ্ঞতা দেবে জিও গ্লাস ভিডিও কনফারেন্সিং

by banganews

ভারতীয় বাজারে জিও এবার আনতে চলেছে এমন প্রযুক্তি যার দ্বারা ফোনের ওপার থেকে শুধু কণ্ঠস্বর নয়, চোখের সামনে জীবন্ত হয়ে উঠবে সেই মানুষের ত্রিমাত্রিক ছবিও। এতদিনের ভিডিও কনফারেন্সের ধারণাকে আমূল বদলে দিতে চলেছে জিও।
থ্রিডি প্ল্যাটফর্ম প্রযুক্তির সহায়তায় থার্ড ডায়মেনশনে এবার থেকে খোশগল্প করা যাবে আপনজনের সঙ্গে। হাই এন্ড অডিওর সঙ্গে সঙ্গে এইচডি ভিডিওর যুগলবন্দীতে একাকার হয়ে যাবে ভার্চুয়ালের সঙ্গে রিয়েল দুনিয়া। রিলায়েন্স জিও দেশের মানুষের জন্য এমনই এক ‘ভার্চুয়াল রিয়ালিটি’ জগতে নিয়ে আসতে চলেছে তাদের নতুন প্রোডাক্ট জিও-গ্লাসের মাধ্যমে। তেতাল্লিশতম অনলাইন ইভেন্টে এই ফিউচারিস্টিক জিও-গ্লাসের ঘোষণা করল রিল্যায়ান্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

আরও পড়ুন পাড়ার ছোট মুদির দোকানও এবার অনলাইনে, সৌজন্যে জিওমার্ট

 

করোনা সংক্রমণের সময়ে এখন সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধ মেনে চলতে গিয়ে ভিডিও চ্যাট অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। ভিডিও কনফারেন্সের এই সিস্টেমকে যদি আদ্যন্ত বদলে দেওয়া হয় থ্রিডি দিয়ে তাহলে বাড়ি বসেই প্রিয়মানুষটির সঙ্গে বাস্তব সাক্ষাতের অনুভূতি পাওয়া সম্ভব, সেই সুবিধাই দেবে জিও-গ্লাস।
এই ভার্চুয়াল রিয়ালিটির বিষয়টা কেমন জানালেন জিও অধিকর্তা নিজেই। তিনি জানালেন জিও-গ্লাস চোখে পড়লে সেই প্রযুক্তি ফোনের ওপারের মানুষটাকে একেবারে চোখের সামনে এনে হাজির করবে। থ্রি-ডি সিনেমায় যেভাবে মনে হয় সিনেমার চরিত্রেরা স্ক্রীন ছেড়ে বেড়িয়ে এসেছে সেভাবেই হবে হলোগ্রাফিক কলিং। ফোনের ডিসপ্লেতে দেখা টু-ডি কনটেন্টকে থ্রি-ডিতে রূপান্তরিত করে ফেলা যাবে এই গ্লাসে। ভার্চুয়াল এক্সপেরিয়েন্স আর বাস্তবিক থ্রি ডাইমেনশন দুইয়ের মিশেলকেই তথ্যপ্রযুক্তিতে বলা হচ্ছে ‘মিক্সড রিয়ালিটি’। এই জিও-গ্লাসের ওজন ৭৫ গ্রাম। হাই-রেজোলিউশন ফ্রেম স্ক্রিন থাকবে সেখানে হলোগ্রাফিক মাল্টিভিউ কনটেন্ট একেবারে পরিষ্কার, দেখা যাবে। মোবাইল ফোনের সঙ্গে কেবলের মাধ্যমে বা ব্লুটুথে যোগ করা যাবে এই গ্লাস। সাধারণ লেন্সের তুলনায় কয়েকশো গুণ উন্নত মানের ও আধুনিক প্রযুক্তি জলদিই সাধারণের হাতে তুলে দিতে তৎপর জিও।

You may also like

3 comments

Leave a Reply!