Home বঙ্গ পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা শাসকের কনফারেন্স হলে শিশু সুরক্ষা নিয়ে আলোচনা সভা;

পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা শাসকের কনফারেন্স হলে শিশু সুরক্ষা নিয়ে আলোচনা সভা;

by banganews

পূর্ব মেদিনীপুর, ২৫ অগাস্ট, ২০২০ঃ  আজ পূর্ব মেদিনীপুর জেলাশাসকের কনফারেন্স হলে শিশু সুরক্ষা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শিশু সুরক্ষা আয়োগ এর চেয়ারপারসন শ্রীমতি অনন্যা চক্রবর্তী , জেলার পুলিশ ও প্রশাসনের অনেক আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেন। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সভাধিপতি মাননীয় শ্রীযুক্ত দেবব্রত দাস, পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক পার্থ ঘোষ, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের স্পেশাল কনসালটেন্ট সুদেষ্ণা রায়, সদস্য শেখর ভট্টাচার্য, ডিস্ট্রিক্ট লিগাল সার্ভিস অথরিটির সেক্রেটারি সুমন কুমার ঘোষ, অতিরিক্ত জেলা শাসক (সাধারণ ) সুদীপ সরকার, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের শিশু ও নারী উন্নয়ন, জনকল্যাণ স্থায়ী সমিতির কর্মধক্ষ, সুমিত্রা পাত্র, জেলা সমাজ কল্যাণ আধিকারিক শ্রীযুক্ত পূর্ণেন্দু পৌরাণিক, জেলা শিশু কল্যাণ কমিটির চেয়ারপার্সন , ডক্টর দিলীপ কুমার দাস, জেলা শিশু সুরক্ষা আধিকারিক, সারদা গিরি সহ ডিস্ট্রিক্ট চাইল্ড প্রোটেকশন ইউনিটের আধিকারিক গণ ও জেলার বিভিন্ন হোম থেকে আগত প্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুন  বিনা কারণে আচমকা মীরাক্কেল থেকে সরানো হল শ্রীলেখাকে

এই বৈঠকে দুটি ইস্যু নিয়ে মূলত আলোচনা হয়। একটি হচ্ছে লকডাউন পিরিয়ডে শিশুরা কী কী সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিল এবং জেলা শিশু সুরক্ষা ইউনিট কীভাবে তার মোকাবেলা করেছে। আরেকটি হলো কীভাবে চাইল্ড প্রটেকশন কমিটিকে আরও কার্যকরী করা যায়। এই দুটোর ইস্যুর উপরে বিশেষভাবে আলোচনা হয়। সেখানে প্রত্যেক বক্তা তাদের মূল্যবান বক্তব্য পেশ করেন। রাজ্য শিশু সুরক্ষা আয়োগ এর চেয়ারপারসন শ্রীমতি চক্রবর্তী বলেন তিনি সার্বিক বিশ্লেষণ ও পরিচালনা করেন। পূর্ব মেদিনীপুরের শিশু সুরক্ষা সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি । সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে লকডাউন পিরিয়ডে গত বছরের তুলনায় প্রতি জেলায় বাল্যবিবাহ বেড়ে যাচ্ছে। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধের প্রসঙ্গে বলেন, অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেখা লিখিয়ে নেওয়াটা সঠিক পদ্ধতি নয়। বাল্যবিবাহ দিতে চাইলে বা বাল্যবিবাহের ঘটনা ঘটলেই তার বিরুদ্ধে এফআইআর করা উচিত।
পূর্ব মেদিনীপুর জেলার জেলাশাসক মাননীয় পার্থ ঘোষ বলেন “আমাদের জেলায় বেশকিছু শিশুদের হোম রয়েছে যেখানে শিশুরা বসবাস করছে
তাদেরকে সুস্থ ভাবে রাখাটাই আমাদের বড় চ্যালেঞ্জ ছিল। বিশেষ করে খাদ্য সামগ্রী মজুত রাখা, স্যানিটাইজ করা ,সঠিক সময়ে মেডিকেল চেকআপ করা এসব আমরা দক্ষতার সঙ্গে সম্পন্ন করেছি।” এখনো পর্যন্ত কোন শিশুদের হোমে কোন শিশু করোনা আক্রান্ত হয়নি বলে জানান।

 

আরও পড়ুন করোনা আক্রান্ত দেবের ম্যানেজার, সপরিবারে কোয়ারেন্টাইনে অভিনেতা সাংসদ

পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সভাধিপতি মাননীয় শ্রীযুক্ত দেবব্রত দাস বলেন বর্তমানে পঞ্চায়েত এর সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিগণ অনেক সচেতন। যত মানুষ সচেতন হবে অদূর ভবিষ্যতে বাল্যবিবাহের মত অপরাধগুলো বন্ধ হয়ে যাবে।
জেলা সমাজ কল্যাণ আধিকারিক শ্রীযুত পূর্ণেন্দু পৌরাণিক বলেন এই কঠিন পরিস্থিতিতে শিশুদেরকে সঠিকভাবে নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে পরিষেবা দেওয়ার জন্য জেলা শিশু সুরক্ষা ইউনিটের কর্মীবৃন্দ ও হোমের সুপার সহ অন্যান্য কর্মীদের অবদানের কথা উল্লেখ করেন।

You may also like

1 comment

Leave a Reply!