Home বঙ্গ অবসাদের জের? বিষ্ণুপুরের রাজার রহস্যমৃত্যু

অবসাদের জের? বিষ্ণুপুরের রাজার রহস্যমৃত্যু

by banganews

বিষ্ণুপুর, ০১ আগস্টঃ  রাজবাড়িতে রহস্যমৃত্যু। আবার যার তার নয়, খোদ রাজার। বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের মল্লগড়ের রাজপরিবারের ঘটনা। প্রাথমিক বিচারে মনে হয়, নিজেরই বন্দুকের গুলিতে প্রাণত্যাগ করলেন মল্লগড় রাজবাড়ির অধুনা মহারাজা সলিল সিংহ ঠাকুর। যদিও পুলিশ বলছে, এই রহস্যমৃত্যুর প্রকৃত কারণ তদন্ত করে দেখছে তারা।
এই রাজা উপাধিতে রাজা। এখন আর রাজত্ব না থাকাটাই স্বাভাবিক। তবু মল্ল রাজত্বের রাজা হিসাবেই সকলে চিনত সলিল সিংহ ঠাকুরকে। আজ বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে নিজের বাড়ি থেকে উদ্ধার হল তাঁর গুলিবিদ্ধ দেহ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে প্রাচীন মল্লগড় বিষ্ণুপুরে।

আরও পড়ুন চলে গেলেন অমর সিং

শনিবার সাতসকালেই গুলির শব্দে কেঁপে ওঠে মল্লগড় বিষ্ণুপুর। আচমকা গুলির শব্দে উৎসুক মানুষের ভিড় জমায় মল্ল রাজ দরবারে। এরপরই জানা যায়, মল্ল রাজপরিবারের বর্তমান রাজা সলিল সিংহ ঠাকুরের গুলিবিদ্ধ দেহ পড়ে রয়েছে বাড়ির ভিতর। আর দেহের পাশেই পড়ে রয়েছে তাঁর লাইসেন্সযুক্ত একনলা বন্দুক।
বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। রাজার দেহ ময়নাতদন্তেও পাঠানো হয়েছে। তবে এটি আত্মহত্যা, না খুন, তা নিয়ে এখনই কিছু বলতে চায়নি পুলিশ। সবদিক খতিয়ে দেখছে।

আরও পড়ুন আত্মহত্যা করেননি সুশান্ত, প্রমাণসহ প্রধানমন্ত্রীকে দিদির চিঠি

শোনা যাচ্ছে, বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন সলিল সিংহ ঠাকুর। মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। যদিও বিষয়টি নিয়ে কোনওরকম মুখ খুলতে চাননি রাজ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। তবে পুলিশের একাংশেরও ধারণা তেমনই।

You may also like

1 comment

Leave a Reply!