Home দেশ গণতন্ত্রকে হত্যা করা হচ্ছে, করোনা নিয়ে উদাসীন কেন্দ্র; সংসদে তোপ ডেরেকের

গণতন্ত্রকে হত্যা করা হচ্ছে, করোনা নিয়ে উদাসীন কেন্দ্র; সংসদে তোপ ডেরেকের

by banganews

নয়াদিল্লি, ১৫ সেপ্টেম্বর : করোনা পরিস্থিতি যখন আয়ত্তের বাইরে চলে যাচ্ছিল, তখন থালা বাজানো, আলো জ্বালানোর নিদান দিচ্ছিল কেন্দ্র। যখন সচেতন হওয়া প্রয়োজন ছিল তখন ট্রাম্পকে ভারতে এনে লাড্ডু ও ধোকলা খাওয়ানো হচ্ছিল। করোনা সহ দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে এভাবেই কেন্দ্রীয় সরকারকে তীব্র আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন।

মঙ্গলবার বাদল অধিবেশনের দ্বিতীয় দিনে সংসদের বাইরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ডেরেক বলেন, “গণতন্ত্রকে হত্যা করছে এই বিজেপি সরকার। গণতন্ত্রের নামে পরিহাস চলছে। কোয়েশ্চেন আওয়ার হচ্ছে না। জিরো আওয়ারের জন্য এখন একঘণ্টা নয়, মাত্র ৩০ মিনিট সময় দেওয়া হয়। কোনও বিল স্ক্রুটিনির জন্য সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয় না।”

দেখুন ভিডিও 

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এদিন সংসদে বিবৃতি দেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সেই প্রসঙ্গ তুলে ডেরেক বলেন, “স্বাস্থ্যমন্ত্রী শুধু প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশকর্মী, যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়েছেন এবং অনেকে প্রাণও হারিয়েছেন, তাঁদের ধন্যবাদ দেওয়ার প্রয়োজন বোধ করেননি।”
করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার দ্রুত ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করেনি বলে অভিযোগ করেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ। লকডাউন অনেক দেরিতে ঘোষণা করা সত্ত্বেও তার আগে কেন রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করা হয়নি, এবং মাত্র ৪ ঘণ্টার মধ্যে কেন ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা হল তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ডেরেক। স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে খরচের বেশিরভাগটাই বহন করে রাজ্য সরকার, এই তথ্য তুলে ধরে ডেরেকের প্রশ্ন, “কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কি উচিত ছিল না রাজ্য সরকারগুলিকে ধন্যবাদ জানানো?”

লকডাউন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর থালা বাজানো ও আলো জ্বালানোর মত নিদানকেও কটাক্ষ করেন ডেরেক ও’ব্রায়েন।

You may also like

2 comments

Leave a Reply!