Home দেশ এক মাসের রাজনৈতিক তরজার ইতি, আস্থা ভোটে জিতল গেহলট সরকার

এক মাসের রাজনৈতিক তরজার ইতি, আস্থা ভোটে জিতল গেহলট সরকার

by banganews

জয়পুর,১৪ অগাস্ট, ২০২০ : রাজস্থান বিধানসভায় আস্থা ভোটে জয়লাভ করল অশোক গেহলট সরকার। বিজেপির আনা অনাস্থা প্রস্তাবের জবাব দিতে এদিন রাজস্থান বিধানসভায় ধ্বনি ভোট হলে জয়ী হয় কংগ্রেস। উপমুখ্যমন্ত্রী সচিন পাইলটের নেতৃত্বে ১৮ জন বিধায়ক বিদ্রোহ ঘোষণা করলে, রাজস্থানে কংগ্রেস সরকার ভেঙে পড়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। মুখ্যমন্ত্রী গেহলট প্রথম থেকেই বলেছিলেন সরকারের সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। এই ঘটনার ফলশ্রুতিতে পাইলটকে উপমুখ্যমন্ত্রী পদ ও প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি পদ থেকে সরানো হয়।

আরও পড়ুন সুপ্রিম কোর্টে রেজিস্ট্রারদের বিরুদ্ধে মামলা, ৫০ পয়সার কয়েনে জরিমানা বার কাউন্সিলের

এরপর গোটা এক মাস ধরে রাজনৈতিক খবরের শিরোনামে ছিল রাজস্থান। অনেক ঝক্কি-ঝামেলার পর রাজ্যপাল অবশেষে বিধানসভা অধিবেশনে সম্মতি দেন। রাজস্থান বিধানসভার অধ্যক্ষ বিদ্রোহী কংগ্রেস বিধায়কদের কারণ দর্শাতে বলে নোটিশ পাঠায়। সেই মামলা রাজ্যের হাইকোর্ট থেকে দেশের সর্বোচ্চ আদালত পর্যন্ত পৌঁছয়। অধিবেশেনের আগ দিয়ে পাইলট প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধির সঙ্গে দেখা করেন। রাহুল ও সচিনের মধ্যে সমঝোতার বৈঠক সফল হওয়ার এদিন রাজস্থান বিধানসভায় কংগ্রেস সরকার ধ্বনি ভোটে জয়লাভ করে।

আরও পড়ুন শ্রীনগরে জঙ্গি হামলা, শহীদ ২ পুলিশ আধিকারিক

এদিন আইন মন্ত্রী শান্তি কুমার ধারিওয়াল বিধানসভায় আস্থা ভোটের প্রস্তাব পেশ করেন। রাজস্থান বিধানসভার অধ্যক্ষ সি পি জোশী আলোচনা ও বিতর্কের জন্য তিন ঘন্টার সময়সীমা সহ সেই প্রস্তাব গ্রহণ করেন। কংগ্রেস নেতারা নাম না করেই মরুরাজ্যের পদ্ম শিবিরের সমালোচনা করেন।
এর প্রত্যুত্তরে বিরোধী দলনেতা রাজেন্দ্র রাঠোর বলেন, “রাজস্থানের এই নাটকে অভিনেতা, নায়ক, খলনায়ক সব একটি দলেরই। এই গোটা ঘটনায় কংগ্রেসের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে। হাতি কেনাবেচার সঙ্গে যারা জড়িত,অন্যের বিরুদ্ধে ঘোড়া কেনাবেচার অভিযোগ আনা তাদের জন্য অনুচিত।”

You may also like

1 comment

Leave a Reply!